Architecture Job Circular 2020

Architecture Job Circular 2020: স্থাপত্য অধিদপ্তরের শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। স্থাপত্য অধিদপ্তর ১২ টি পদে মোট ৩৮ জনকে নিয়োগ দেবে। উক্ত পদ গুলোতে নারী- পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি( architecture job circular 2020 ) বিস্তারিত দেওয়া হল।

Department of Architecture Job Circular 2020

পদের নাম: ৩ডি এনিমেটর
পদসংখ্যা: ০৩ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: ডিপ্লোমা ইন আর্কিটেকচার।
বেতন স্কেল: ১২,৫০০ – ৩০,২৩০ টাকা।

পদের নাম: ড্রাফটসম্যান (নকশাকার গ্রেড-২)
পদসংখ্যা: ০২ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্থাপত্যে ডিপ্লোমা।
বেতন স্কেল: ১১,৩০০ – ২৭,৩০০ টাকা।

পদের নাম : সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
অন্যান্য যোগ্যতা : সাঁট লিপিতে প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ৪৫ ও ৭০, কম্পিউটার টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ২৫ ও ৩০।
বেতন স্কেল : ১০,২০০ – ২৪,৬৮০ টাকা।

পদের নাম : কেয়ারটেকার
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল : ১০,২০০ – ২৪,৬৮০ টাকা।

পদের নাম: ড্রাফটসম্যান (নকশাকার গ্রেড-৪)
পদসংখ্যা: ১৪ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এইচএসসি অথবা ডিপ্লোমা ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ৯,৭০০ – ২৩,৪৯০ টাকা।

পদের নাম : অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদের সংখ্যা : ০৮টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমান পাস।
অন্যান্য যোগ্যতা : ওয়ার্ড প্রসেসিং, ডাটা এন্ট্রি এবং টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে ২০।
বেতন স্কেল : ৯,৩০০ – ২২,৪৯০ টাকা।

পদের নাম : সহকারী মডেল মেকার
পদের সংখ্যা : ০৩টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এসএসসি বা সমমান পাস।
বেতন স্কেল : ৮,৮০০ – ২১,৩১০ টাকা।

পদের নাম : সহকারী প্রিন্টার
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এসএসসি বা সমমান পাস।
বেতন স্কেল : ৮,৫০০ – ২০,৫৭০ টাকা।

পদের নাম : ইলেকট্রিশিয়ান
পদের সংখ্যা : ০২টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : ইলেকট্রিক্যাল বিষয়ে এসএসসি (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ।
বেতন স্কেল : ৮,৫০০ – ২০,৫৭০ টাকা।

Architecture Job Circular 2020

পদের নাম : প্লাম্বার
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : প্লাম্বিং ট্রেড সার্টিফিকেট।
বেতন স্কেল : ৮,৫০০ – ২০,৫৭০ টাকা।

পদের নাম : কার্পেন্টার
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : কার্পেন্ট্রি ট্রেড সার্টিফিকেট।
বেতন স্কেল : ৮,৫০০ – ২০,৫৭০ টাকা।

পদের নাম : বুকবাইন্ডার
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এসএসসি বা সমমান পাস।
বেতন স্কেল : ৮,২৫০ – ২০,০১০ টাকা।

আবেদনের ঠিকানা : প্রার্থীকে ‘প্রধান স্থপতি, স্থাপত্য অধিদপ্তর, স্থাপত্য ভবন, সেগুনবাগিচা, ঢাকা-১০০০’ বরাবর আবেদন করতে হবে।

আবেদনের শেষ সময় : ৩১ মার্চ ২০২০ তারিখের মধ্যে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে।

বিস্তারিত দেখুন বিজ্ঞপ্তিতে… 

বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।

Bim Job Circular 2020

BIM Job circular 2020: শিল্প মন্ত্রালয়ের আওতাধীন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট এর শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট ২৫ টি পদে মোট ৫৫ জনকে নিয়োগ দেবে। উক্ত পদ গুলোতে নারী- পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি (BIM Job circular 2020) বিস্তারিত দেওয়া হল।

পদের নাম: ব্যবস্থাপনা উপদেষ্টা
পদসংখ্যা: ১০ টি।

পদের নাম: উর্ধ্বতন সম্পাদক
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: সহযোগী ব্যবস্থাপক উপদেষ্টা
পদসংখ্যা: ০৬ টি।

পদের নাম: গবেষণা কর্মকর্তা
পদসংখ্যা: ০২ টি।

পদের নাম: প্রধান সহকারী
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: সাঁটলিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ০৬ টি।

পদের নাম: সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ০২ টি।

পদের নাম: উচ্চমান সহকারী
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: প্রজেক্টর অপারেটর
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: ইলেকট্রিশিয়ান
পদসংখ্যা: ০২ টি।

পদের নাম: এলডিএ কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদসংখ্যা: ০৩ টি।

পদের নাম: রেকর্ড কীপার
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: ফটোগ্রাফার
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: অভ্যর্থনাকারী
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: লাইব্রেরী এটেনডেন্ট
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: ফটোকপি অপারেটর
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: পাম্প চালক (পাম্প অপারেটর)
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: বাবুর্চি (পাচক)
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: রুম এটেন্ডেন্ট
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: হেলপার
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: মালী
পদসংখ্যা: ০১ টি।

পদের নাম: অফিস সহায়ক
পদসংখ্যা: ০৪ টি।

পদের নাম: নিরাপত্তা প্রহরী
পদসংখ্যা: ০৩ টি।

পদের নাম: পরিচ্ছন্ন কর্মী
পদসংখ্যা: ০২ টি।

আবেদনের ঠিকানা : প্রার্থীকে ‘মহাপরিচালক, বাংলাদেশ ইনিষ্টিটিউট অব ম্যানেজমেন্ট, ৪ সোবহানবাগ, মিরপুর রোড, ঢাকা-১২০৭’ বরাবর আবেদন করতে হবে।

আবেদনের শেষ সময় : ৩১ মার্চ ২০২০ তারিখের মধ্যে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে।

বিস্তারিত দেখুন বিজ্ঞপ্তিতে… 

government jobs, fire service job circular, bpsc, bpsc bd, government jobs,
government job, govt job, govt jobs, government job circular, all govt job,
recent govt job circular, বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।


Mofood Job Circular 2020

কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ ২০২০

Mofood Job Circular 2020: খাদ্য মন্ত্রণালয়ের শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। খাদ্য মন্ত্রণালয় ৩টি পদে মোট ১০ জনকে নিয়োগ দেবে। উক্ত পদ গুলোতে নারী- পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি (Mofood Job Circular 2020 ) বিস্তারিত দেওয়া হল।

Ministry of Food Job Circular 2020

পদের নাম : সাঁট মুদ্রাক্ষরিক কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদের সংখ্যা : ০৪টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
অন্যান্য যোগ্যতা : সাঁট লিপিতে প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ৪৫ ও ৭০, কম্পিউটার টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ২৫ ও ৩০।
বেতন স্কেল : ১১,০০০ – ২৬,৫৯০ টাকা।

পদের নাম : অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদের সংখ্যা : ০১টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমান পাস।
অন্যান্য যোগ্যতা : ওয়ার্ড প্রসেসিং, ডাটা এন্ট্রি এবং টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে ২০।
বেতন স্কেল : ৯,৩০০ – ২২,৪৯০ টাকা।

fire service job circular,
bpsc,
bpsc bd,
government jo

পদের নাম: অফিস সহায়ক
পদসংখ্যা: ০৫ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এসএসসি পাস।
বেতন: ৮,২৫০ – ২০,০১০ টাকা।

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে http://mofood.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদন শুরুর সময়: ০৪ মার্চ ২০২০ তারিখ সকাল ১০:০০ টা থেকে আবেদন করা যাবে।
আবেদনের শেষ সময়: ০৪ এপ্রিল ২০২০ তারিখ বিকাল ০৫:০০ টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

Apply

বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তিতে দেখুন…

government jobs, বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।

SAILOR & MODC (NAVY) Job 2020

SAILOR & MODC (NAVY) Job 2020: নাবিক ও এমওডিসি (নৌ) পদে বি-২০২০ ব্যাচে ভর্তি নেওয়া হবে। বিভিন্ন পদে আবেদনের জন্য দেখে নিন বিস্তারিত :

শিক্ষাগত যোগ্যতা

ডিই/ইউসি (সিম্যান, কমিউনিকেশন ও টেকনিক্যাল) : বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এসএসসি/সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীদের অবশ্যই জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে। এসএসসি পরীক্ষায় উচ্চতর গণিত থাকলে এবং বিএন ডকইয়ার্ড কো-অপারেটিভ সোসাইটি টেকনিক্যাল ইনস্টিটিউট থেকে ‘এ’ গ্রেড প্রাপ্ত প্রার্থীরা নিয়োগে অগ্রাধিকার পাবেন। SAILOR & MODC (NAVY) Job 2020

মেডিকেল : জীববিজ্ঞানসহ এসএসসি/সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। প্রার্থীদের অবশ্যই জিপিএ ৩.০০ পেতে হবে।

পেট্রলম্যান, রাইটার, স্টোর, স্টুয়ার্ড,  কুক ও এমওডিসি (নৌ) : ন্যূনতম জিপিএ ৩.০০ পেয়ে এসএসসি/সমমান পাস প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন।

টোপাস (পুরুষ) : পঞ্চম শ্রেণি পাস হলেই আবেদন করা যাবে এই পদে।

শারীরিক যোগ্যতা

সিম্যান ও এমওডিসি (নৌ) পদের জন্য প্রার্থীদের জন্য উচ্চতা পাঁচ ফুট ছয় ইঞ্চি হতে হবে। এ ছাড়া পেট্রলম্যান শাখার জন্য উচ্চতা পাঁচ ফুট আট ইঞ্চি ও অন্যান্য শাখার জন্য উচ্চতা পাঁচ ফুট চার ইঞ্চি (৫’৪”) হলেই আবেদন করা যাবে। প্রার্থীদের বুকের মাপ স্বাভাবিক অবস্থায় (পুরুষ ৩০ ইঞ্চি ও স্ফীত অবস্থায় ৩২ ইঞ্চি) হতে হবে। এ ছাড়া দৃষ্টিশক্তি ৬/৬ থাকতে হবে। ওজন উচ্চতা ও বয়স অনুযায়ী নির্ধারণ করতে হবে।

অন্যান্য যোগ্যতা

প্রার্থীদের বয়স আগামী ০১ জুলাই ২০২০ তারিখে নাবিকের ১৭ থেকে ২০ বছর হতে হবে। তবে এমওডিসি  (নৌ) পদের জন্য বয়সসীমা ১৭ থেকে ২২ বছর। পদগুলোতে আবেদনের জন্য শুধু অবিবাহিত প্রার্থীরাই গ্রহণযোগ্য। এ ছাড়া আবেদনকারীদের সাঁতার জানতে হবে।

বেতন ও ভাতা

নিয়োগপ্রাপ্তদের সশস্ত্র বাহিনীর নিয়ম অনুযায়ী বেতন ও ভাতা দেওয়া হবে। এ ছাড়া অন্যান্য সুবিধাও থাকবে।

SAILOR & MODC (NAVY) Job 2020 আবেদন প্রক্রিয়া

আগ্রহী প্রার্থীরা বাংলাদেশ নৌবাহিনীর ওয়েবসাইট ঠিকানায় (www.joinnavy.mil.bd) বিজ্ঞাপনে উল্লেখিত নিয়মে আবেদন করতে পারবেন।  আবেদনের পর ভর্তির জন্য নির্ধারিত পরীক্ষা কেন্দ্রে উপস্থিত থাকার আহ্বান জানানো হয়েছে

SAILOR & MODC (NAVY) Job 2020 বিস্তারিত জানতে নিচের চিএটি দেখুন।

SAILOR & MODC (NAVY) Job 2020

বিস্তারিত জানতে যোগাযোগ: পরিচালক, পার্সোনাল সার্ভিসেস পরিদপ্তর, নৌবাহিনী সদর দপ্তর, বনানী, ঢাকা-১২১৩, ফোন: ০২-৯৮৩৬১৪১-৯, বর্ধিত ২২১৫, হেল্পলাইন: ০১৭৬৯-৭০২২১৫, ওয়েবসাইট: www.joinnavy.navy.mil.bd

বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।

Police Job Circular 2020

Police job circular 2020: পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, ঢাকার শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, ঢাকা ৩ টি পদে মোট ২২ জনকে নিয়োগ দেবে। উক্ত পদ গুলোতে নারী- পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। এই চাকরিতে সকল জেলার প্রার্থীদের আবেদন করার সুযোগ আছে। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি ( Police Headquarter Dhaka Job Circular 2020 ) বিস্তারিত দেওয়া হল।

পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২০

পদের নাম : সাঁটলিপিকার কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদের সংখ্যা : ০২টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
অন্যান্য যোগ্যতা : সাঁট লিপিতে প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ৪৫ ও ৭০, কম্পিউটার টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ২৫ ও ৩০।
বেতন স্কেল : ১০,২০০ – ২৪,৬৮০ টাকা।

পদের নাম: পরিসংখ্যান সহকারী
পদসংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: পরিসংখ্যান বিষয়সহ স্নাতক ডিগ্রী।
বেতন: ১০,২০০ – ২৪,৬৮০ টাকা।

পদের নাম : অফিস সহকারী কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদের সংখ্যা : ১৯টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : এইচএসসি বা সমমান পাস।
অন্যান্য যোগ্যতা : ওয়ার্ড প্রসেসিং, ডাটা এন্ট্রি এবং টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে ২০।
বেতন স্কেল : ৯,৩০০ – ২২,৪৯০ টাকা।

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে http://phqcr.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদন শুরুর সময়: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ সকাল ১০:০০ টা থেকে আবেদন করা যাবে।
আবেদনের শেষ সময়: ২৪ মার্চ ২০২০ তারিখ বিকাল ০৫:০০ টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

Apply

বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তিতে দেখুন…

Police Job Circular 2020
Police Job Circular 2020

বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।

DC Office Job 2020

কমিশনারের কার্যালয়ে নিয়োগ ২০২০

Kushtia DC Office Job Circular 2020: কুষ্টিয়া জেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন পরিষদ এর শূন্য পদসমূহে লোক নিয়োগ দেয়া হবে। হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর পদে ২১ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। এই চাকরিতে কুষ্টিয়া জেলার স্থায়ী বাসিন্দারা শুধু আবেদন করতে পারবেন। পদগুলোতে নারী ও পুরুষ উভয়ই প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি বিস্তারিত দেওয়া হল।

পদের নাম : হিসাব সহকারী কাম কম্পিউটার অপারেটর
পদ সংখ্যা : ২১ টি
শিক্ষাগত যোগ্যতা : বাণিজ্য বিভাগে উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান।
অন্যান্য যোগ্যতা : কম্পিউটার টাইপিং-এ প্রতি মিনিটে শব্দের গতি বাংলা ও ইংরেজিতে যথাক্রমে ২০ ও ২০
বেতন স্কেল : ৯,৩০০ – ২২,৪৯০ টাকা

আবেদনের ঠিকানা : প্রার্থীকে ‘জেলা প্রশাসক কার্যালয়, কুষ্টিয়া’  বরাবর আবেদন করতে হবে।

আবেদনের শেষ সময় : ১৯ মার্চ ২০২০ তারিখের মধ্যে আবেদনপত্র পাঠাতে হবে।

DC Office Job 2020 বিস্তারিত দেখুন বিজ্ঞপ্তিতে… 

dc office job 2020

বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।

এক নজরে কুষ্টিয়া জেলা

সাহিত্য ও সংস্কৃতির রাজধানী হিসেবে পরিচিত কুষ্টিয়া জেলার উত্তর পশ্চিম এবং উত্তরে পদ্মা নদীর অপর তীরে রাজশাহী, নাটোর ও পাবনা জেলা, দক্ষিণে ঝিনাইদহ জেলা, পশ্চিমে মেহেরপুর ও চুয়াডাঙ্গা জেলা এবং ভারতের নদীয়া ও মুর্শিদাবাদ জেলা এবং পূর্বে রাজবাড়ী জেলা অবস্থিত। ভারতের সাথে কুষ্টিয়ার ৪৬.৬৯ কিলোমিটার সীমান্ত এলাকা আছে।
বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্মৃতি বিজড়িত এই কুষ্টিয়া শিল্প সাহিত্য ও সংস্কৃতিতে বাংলাদেশকে করেছে সমৃদ্ধ। এছাড়াও বিষাদ সিন্ধুুর রচয়িতা মীর মশাররফ হোসেন এবং বাউল সম্রাট লালনের তীর্থভূমি, পুরাতন কুষ্টিয়া হাটশ হরিপুর গ্রামে গীতিকার, সুরকার ও কবি আজিজুর রহমানের বাস্ত্তভিটা ও কবর, এ জনপদে জন্মগ্রহণকারী বিশিষ্ট কবি দাদ আলী, লেখিকা মাহমুদা খাতুন সিদ্দিকা, ‘‘এই পদ্মা এই মেঘনা’’ গানের রচয়িতা আবু জাফর, সাবেক প্রধানমন্ত্রী শাহ আজিজুর রহমান, কুষ্টিয়ার সাহিত্য ও সংস্কৃতির প্রতিষ্ঠাতা কাঙাল হরিণাথ, নীল বিদ্রোহের নেত্রী প্যারী সুন্দরী, স্বদেশী আন্দোলনের নেতা বাঘা যতিন, প্রকৌশলী কামরুল ইসলাম সিদ্দিকী, সঙ্গীত শিল্পী মোঃ আব্দুল জববার, ফরিদা পারভীনসহ অসংখ্য গুণীজনের পীঠস্থান কুষ্টিয়াকে সমৃদ্ধ করেছে।

BARC Job Circular 2020

BARC Job Circular 2020: বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিলর ১৩ টি পদে মোট ২৮ জনকে নিয়োগ দেয়া হবে। উক্ত পদ গুলোতে নারী- পুরুষ উভয়ই আবেদন করতে পারবেন। আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। এই চাকরিতে সকল জেলার প্রার্থীদের আবেদন করার সুযোগ আছে। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি ( BARC Job Circular 2020 ) বিস্তারিত দেওয়া হল।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা কাউন্সিল চাকরির খবর ২০২০

পদের নাম: প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা
পদ সংখ্যা: ১৩ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: কৃষি বিজ্ঞানের সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অথবা স্নাতক ডিগ্রিসহ স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ৫০,০০০-৭১,২০০ টাকা।

পদের নাম: সিনিয়র সায়েন্টিফিক এডিটর
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: কৃষি বিজ্ঞান বিষয়ে পিএইচডি ডিগ্রি অথবা স্নাতক ডিগ্রিসহ স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা।

পদের নাম: সিনিয়র রিপ্রোগ্রাফিক অফিসার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: কৃষি বিজ্ঞানের কোনো বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিসহ স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা।

পদের নাম: সিনিয়র সহকারী পরিচালক
পদ সংখ্যা: ০২ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: হিসাব বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রিসহ স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ৩৫,৫০০-৬৭,০১০ টাকা।

পদের নাম: ইনফরমেশন অফিসার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: তথ্যবিজ্ঞান, গ্রন্থাগার বিজ্ঞান বা গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিষয়ে স্নাতক ডিগ্রিসহ স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ২২,০০০-৫৩,০৬০ টাকা।

পদের নাম: গ্রাফিক্স ডিজাইনার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: ফাইন আর্টস বিষয়ে স্নাতকোত্তর বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ২২,০০০-৫৩,০৬০ টাকা।

BARC Job Circular 2020

পদের নাম: সাইট ইঞ্জিনিয়ার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে ডিপ্লোমা।
বেতন স্কেল: ১৬,০০০-৩৮,৬৪০ টাকা।

পদের নাম: রক্ষণাবেক্ষণ পরিদর্শক
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: ইলেকট্রিক্যাল, মেকানিক্যাল বা সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়ে ডিপ্লোমা।
বেতন স্কেল: ১৬,০০০-৩৮,৬৪০ টাকা।

পদের নাম: ওয়ার্ড প্রসেসিং সহকারী
পদ সংখ্যা: ০২ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা।

পদের নাম: হিসাব রক্ষক
পদ সংখ্যা: ০২ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: বাণিজ্যে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা।

পদের নাম: হেড ক্যাশিয়ার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: বাণিজ্যে স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ১১,০০০-২৬,৫৯০ টাকা।

পদের নাম: প্রুফ রীডার
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল: ১০,২০০-২৪,৬৮০ টাকা।

পদের নাম: স্টোর ক্লার্ক কাম কম্পিউটার মুদ্রাক্ষরিক
পদ সংখ্যা: ০১ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা: এইচএসসি পাস।
বেতন স্কেল: ৯,৩০০-২২,৪৯০ টাকা।

আবেদনের নিয়ম: আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে http://barc.teletalk.com.bd ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আবেদন করতে পারবেন।

আবেদন শুরুর সময়: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ সকাল ১০:০০ টা থেকে আবেদন করা যাবে।
আবেদনের শেষ সময়: ২৪ মার্চ ২০২০ তারিখ বিকাল ০৫:০০ টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

বিস্তারিত বিজ্ঞপ্তিতে দেখুন…


CAG Job Circular 2020

CAG Job Circular 2020: কম্পট্রোলার এন্ড অডিটর জেনারেল এর কার্যালয় এর শূন্য পদসমূহে জনবল নিয়োগ দেয়া হবে। কম্পট্রোলার এন্ড অডিটর জেনারেল এর কার্যালয় ২ টি পদে মোট ৩২৩ জনকে নিয়োগ দেবে। পদগুলোতে নারী ও পুরুষ উভয়েই আবেদন করতে পারবেন। আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে আবেদন করতে পারবেন। সম্পূর্ণ বিজ্ঞপ্তি ( CAG Job Circular 2020 ) বিস্তারিত দেওয়া হল।

The Office of the Comptroller and Auditor General of Bangladesh Job Circular 2020

পদের নাম : অডিটর
পদের সংখ্যা : ৩০৯ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল : ১২,৫০০-৩০,২৩০ টাকা।

পদের নাম : সিনিয়র একাউন্টস ক্লার্ক
পদের সংখ্যা : ১৪ টি।
শিক্ষাগত যোগ্যতা : স্নাতক বা সমমানের ডিগ্রি।
বেতন স্কেল : ১১,৩০০-২৭,৩০০ টাকা।

আবেদন প্রক্রিয়া: আগ্রহী প্রার্থীরা অনলাইনে http://ocag.teletalk.com.bd এই ওয়েবসাইটে গিয়ে আবেদনপত্র পূরণ করতে পারবেন।

আবেদন শুরুর সময়: ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২০ তারিখ সকাল ১০:০০ টা থেকে আবেদন করা যাবে।
আবেদনের শেষ সময়: ১৯ মার্চ ২০২০ বিকাল ০৫:০০ টা পর্যন্ত আবেদন করা যাবে।

বিস্তারিত জানতে অফিসিয়াল বিজ্ঞপ্তিটি দেখুন:

cag job circular 2020
peoples job
government
bangldeshi job circular
new job circular 2020
job circular 2020

বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।

More About CAG: The Office of the Comptroller and Auditor General of Bangladesh is the Supreme Audit Institution of the country. Like the SAIs in many other countries across the world the institution is established by the Constitution of Bangladesh

Journalism vs Social Media 2020

Hello, friends Four prominent news channels (Journalism vs Social Media 2020) of our country – Zee News, Ajar Take, India TV and News India You might have noticed that. They are always at the top in Trophy broadcast a prime time debate every evening in which. They raise an issue and debate on tided like, to show you an analysis on their debates.

The debates on Zee News are called, “Tail took devout of the last 50 debates. On Zee News, they attacked Pakistan in 12 of them. They criticized the opposition in 19 of them, praised Mode in 13, raised the Ram Mender issue in 4(They) raised. The PMC bank issue in 1 and talked about Bihar floods in another One. So, if you look at the analysis, you will notice that out of 50 debates.

Negative Effects of Social Media on Journalism

They have talked about matters of importance in only two of them. They have raised issues that are actual ones and the ones that affect the public ( only in two of them) Going ahead. India TV News debates are called “kurukshetra”Out of the last 53 debates. They have attacked Pakistan in the last 30 of them.

Attacked opposition in 11,praised Mode in 11 and talked about the Chandrayaan mission in one. So out of 53, matters of importance were raised in only one. The debates on News 18 are conducted by my dear friend, Amish Devgan. You would see the same story in these debates too Attacks on Pakistan in Eighteen.

Attacks on opposition in 25, praising Mode in Seven. And Ram mender in 5 Amish Divan has raised an issue of importance in not even. One of these debates The debates in Ajar Take are conducted by Remit Sardine- the story remains.

the proliferation of news sources in recent years

The same there too But his strike rate is slightly better Out of the last 44 debates. He has raised an issue of importance in 4 of them In general, the same story prevails in. All these top news channels They are more interested in Pakistan as compared to what’s happening in India Questions ought.

To be raised after this video surfaced What do we do and what do we say? This analysis was done in the past 30 days So think about the issues that arose.

In the past 30 days that were of actual importance Hunger index was released. That displayed the amount of malnutrition in India. Economic crisis surfaced, an unemployment report also surfaced. That stated that in Haryana. When compared to the rest of the states in India, unemployment rate is the highest There were elections too in Haryana.

social media negative effects

But did the news channels raise this issue? No they didn’t. The job of the media is to give a voice to the public. To raise a voice for the publican help it reach the government. (Its job is) not to raise their voice for the government and brain wash the public.

Look at what happens to the journalists who raise their voices. For the public and give a voice to them September 2019.

A journalist showed how the children in a school of Uttar Pradesh were being served rotes with salt. As a part of the mid day meal. That is, they were not being served proper food. In response, the police booked the journalists on charges of criminal conspiracy. And the UP CM, Yogi Adityanath says, that there will be proceedings against the journalist. They don’t intend on fixing the school, instead they are after the one who has raised the issue, June 2019. A journalist was doing a story on train derailment in Uttar Pradesh. Police arrested the journalist, he was urinated upon, he was kept in a lock upend he was thrashed.

While he was kept in the lock up just because he was exposing how train derailments happen.

Social Media and Depression

This is the truth of today’s times in our country. The government has consolidated a strong control over the media, especially the TV media. But there is a ray of hope visible on the internet.

People like you and me raise their voices on the internet freely. There are a lot of online publications and journalists on the internet.

That are able to report freely So the question that arises here is. Would it be possible for the government to assume the same kind of control over the internet too? If it indeed is possible what could be the solutions for it? What could you and I do to save ourselves?

I’d like to explain you with the help of China. There is a massive internet censorship in China. In fact report of 2017 stated that China is the world’s worst country.

In matters of internet freedom Their censorship is named as the. Great Firewall of China in which website Google, Face book and YouTube are banned. China has made clones of its own of these websites. You cannot criticize the government on their website.

Positive Effects of Social Media

They have blocked certain keywords If you make use of words. In which the government is being criticized they would automatically get blocked from their social media channels.

The police could even be sent after you Some years ago. Someone had made a meme comparing the Chinese President Winnie the Pooh.

You might know Winnie-the-Pooh- it is a very famous animated cartoon. Characters what the government did in response. When this meme went viral The government banned this cartoon character altogether.

You can imagine- they went to the extent of banning the entire cartoon character from their country.

This is still comedy Talking about serious issues, the Chinese government erases its history.

It changes its history to brainwash its citizens. The Chinese Google is Badu If you try searching 1989 Tiananmen Square protests on Badu.

Journalism vs Social Media 2020

You would get nothing If you search the same thing on Google. Then you’d get the entire story of the protest.

The Chinese government does not want the public to know about these protests. It wants to conceal this from its public because these protests were regarding democracy.

So the Chinese government does not want protests related to democracy. To take place ever or that the people raise their voices for their rights.

The Chinese government has put in place a team of thousands and laths of people. Whose sole task is to monitor 24/7 and find out.

Who is speaking against them on the internet that need to be blocked and their voices.

Need to be muzzled So basically, it works like an IT cell.

The Chinese government has put in place a large team like this over the internet.

This censorship has a detrimental effect on China as well as the Chinese government. Think about it, if the people living there are unable to access the internet of the rest of the world. They would not be able to gauge the things in the rest of the world.

Journalism vs Social Media 2020

The scientists there would not be able to access the innovations. And research taking place in the rest of the world. The businessmen residing there would not be able to see the ideas of the outside. World or even take inspiration from them.

So innovation reduces drastically in China due to this This might be the reason behind (as you might have noticed). There are a lot of Western companies. Like Microsoft and Google, that have Indian Crosscut have you ever heard of a western company. That has a Chinese Clothe reason behind internet censorship, in most cases across the world, is a cowardly government.

You can see this happen in every country At one time. BBC was banned in Iran Then BBC is banned in Burundi, Rwanda, China. Because they all state that somewhere our country is being spoken against.

The reason stated is that anti national things are being said But in reality. The reason remains that it is the government. Which is being spoken again stand being criticized.

These cowardly governments do not want criticism against themselves Jazzier was banned in Pakistan.

The reason being the same: Al Jazzier was giving coverage to the opposition politicians.

The Saudi government has clearly stated that for making fun of (the government) or posting satire on social media.

You could be sent to jail. Let us look at what the story in India is Situations in India are obviously.

Not bad to this extent But I’d not want to wait till the day situations get this bad. Some incidents like these have have in India. For example, in April 2019, A lot of people reported that. Their internet service providers are randomly blocking websites like, Reedit, Telegram and sound clouds.

Journalism vs Social Media 2020

Without stating anything or giving a prior notification. They have suddenly blocked these sites When asked for a reason, none was stated.

But some days later, (the websites) were unblocked June 2019. Our government told Whatsapp to make its messages traceable. So that it could be found out who originally started the message. That was being forwarded Obviously, Whatsapp refused to do so because it has end to end encryption.

Nobody can read these messages in Whatsapp. Neither the companies outside, nor Whatsapp itself. But the Indian government wanted it done. Because it said that it wanted to reduce “fake news “Someone go tell the government. Their own It cell spreads the most fake news and it (the government) is stating fake news as the reason.

How could the government actually have benefited having done this? It would become easier to nab journalists like the ones who are exposing the mid day meal scams. If someone is writing against the government, or raising questions to it. Then it would become easier for the government to nab them.

So how does one save oneself from all of this? There is a simple way to keep the internet free and the websites unblocked. And to protect your privacy VPN and Torc browser Upon seeing your IP address.

Your location is found out, websites get blocked for you and targeted ads are sent have. Talked about targeted ads in this video that you can watch if you want to know more.

Journalism vs Social Media 2020

The VPN and Tor browser do the task of concealing the IP address. It is slightly difficult to use the Tor Browser but it is completely free.

The website for Tor browser (is this) as you can see. You can go and download it free from this website Your identity basically remains hidden on this browser.

Using VPN is easier and you’d get protection at more places or browser is merely. A browser- like Google Chrome or Safaris it will keep you secure. If you go to a website on the browser. But if you have the VPN App installed in your phone.

Then whatever internet related functions you use on it for example, Whatsapp or other any other upon them also.

VPN would keep you protected and your IP address hidden. When you use a VPN, then your internet service provider knows.

That you are using a VPN But nothing can be found out further after that. What websites you are accessing or what messages you are sending cannot be found output all these things.

Social Media VS Journalism 2020

Which itself does sell your data Keep this in mind when you are using free VPNs. Because the free ones generally sell your data because they too. Need to earn profit. But there are definitely some uses of free Venin you need to use VPN to merely access a blocked website.

Then to is okay to use a free VPN. As long as you are not giving any personal data thereof you are not exchanging any data while using it. Then it is okay Here I’d like to recommend a VPN that. I have been using personally since a long time Its name is Nord VPN.

There are a lot of benefits of it. I feel its number one benefit is that it is a paid service that is based in the country Panama. There it does not collect any of your data. This company will not leak out your data under pressure from any government. It has thousands of servers in more than 60 different countries. This is one of the few VPNs that can even bypass the great Firewall of China.

The Washington Post

Feel like this too is a huge achievement because most of the VPNs cannot bypass it. Because China itself keeps trying to block Vansant with the sponsorship of Nord video. I have brought a special offer for you in this video if you want to use it. Go to NordVPN.com/Drub and you will get a 70% discount on its 3 year plan Plus. You will get to use VPN for free for a month. You can use it free for a month and see. It has an ions app and an android papist can even run on any computer. Use it and keep it if you like it If you don’t like it. Then there is a 30 day money back guarantee by them. You can get your money back from them.

Not only will it protect your privacy and save you from hackers. But even in the future, if our government blocks any website. Then you can use it to bypass that and visit the website. If our government wants to change history in the future. Then you can access that too through free internet and find out the real truth. Would recommend this especially for journalists, activists and whistle blowers don’t want that incidents like the one in Uttar Pradesh. Happen again in our country. So if you are a journalist, activist or a  whistle blower. If you are trying to expose a scam of the government, then make use of VPNs in your phones. It will provide you enhanced protection hope you would have liked this Article. Share it.

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাস্টার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাস্টার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০: ডিপার্টমেন্ট অনুসারে প্রকাশিত হয়ে থাকে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষা অনুষদ, প্রকৌশল অনুষদ, বায়োলজিক্যাল বিজ্ঞান অনুষদ। পৃথিবী ও পরিবেশ বিজ্ঞান অনুষদ। সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদ,ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদ, বিজ্ঞান অনুষদ ও কলা অনুষদের বিভিন্ন বিভাগে ভর্তির বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়ে থাকে। বছরের একটা নির্দিষ্ট সময়ে। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাস্টার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০

dhaka university masters admission
dhaka university job

About Dhaka University: Dhaka University (abbreviated DU) is an autonomous government university in Bangladesh located at Shahbagh, Dhaka. It was founded in 1920. Following the Oxbridge Education system in British India. The beginning, it was recognized as the Oxford of the East in the context of being strictly regulated. By various eminent scholarship and scientists. Where the government of the country established the university, Dhaka University made a special contribution to establish Bangladesh.

Dhaka University’s teachers received the highest number of Bangladesh Science Academy medals. As well as being the only university in Bangladesh to be ranked among the top five universities by Asia Week.

There are about 5 students and 5 teachers.

History of Dhaka University

During the British colonial rule, the process of establishing Dhaka University began in the second decade of the twentieth century with the aim of developing independent ethnicity. This Dhaka University is the crop of people of East Bengal protesting the unjust decision of the then rulers of British India. Renowned historian Muntasir Mamun writes about the Dhaka Memorial City in this regard,

The University of Dhaka was established to compensate for the partition of Bengal. Lord Litten called Splendid Imperial Compensation. East Bengal education, economy was lagging behind in all respects. After the breakup, this situation changed a bit, especially in education.On February 12, Lord Hardinge, the then Viceroy of British India, promised to establish a university in Dhaka.

Viceroy of British India

The Viceroy met with the Viceroy just three days ago and requested for the establishment of a university, Nawab Sir Salimullah of Dhaka, Nawab Syed Nawab Ali Chowdhury of Dhanbari, Sher-e-Bangla. Who Fazlul Huq and other leaders. Barrister R proposed to establish the university on May 27. Under the leadership of Nathan, DR Kulcher, Nawab Syed Nawab Ali Chowdhury, Nawab Sirajul Islam, influential citizen of Dhaka Anand Chandra Roy, principal of Jagannath College (now Jagannath University), Lalit Mohan Chattopadhyay, Principal of Dhaka College. Achirbald, caretaker of Dhaka Madrasa (present poet Nazrul Government College) Shamsul Ulama Abu Nasser Muhammad Wahed, Mohammad Ali (Aligarh), Principal of the Presidency College H. H. And. James, Professor of Presidency College, C.W. Peak, and Satish Chandra Acharya, principal of Sanskrit College.

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় মাস্টার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০

The Sadler Commission, formed in the 5th, also passed the Indian Legislative Assembly on March 7, 1920, passing the Dhaka University Act (Act No-1) 122. Lord Ronalds declared Nawab Syed Shamsul Huda a lifetime member of the University when he was the Governor of Bengal from 1 to 122. Sir A. On the recommendation of Syed Shamsul Huda. F. Rahman, Who was nominated as Provost of Dhaka University, was formerly working at Aligarh Muslim University. According to Rafiqul Islam’s 3-year book, the Nathan committee proposed setting up a Dhaka University in Ramna area on an acre. This place was then the Dhaka College, Government House, Secretariat and Government Press.

At the beginning of the creation, Dhaka University faced many adversities. In addition, with the outbreak of World War I in 9, there was uncertainty about the establishment of a university. As a result, people of East Bengal expressed frustration. On March 7, Syed Nawab Ali Chowdhury, at the Imperial Legislative Council, urged the government to introduce the bill immediately. The Governor-General agreed to the bill on March 28, 1220. This law is the foundation of the establishment of Dhaka University. As a result of the implementation of this law, the University of Dhaka started on 7 July 1920.

Admission System:

The doors of the university were opened for the students on 7 July 1920. The University of Dhaka was built in a pleasant environment with the buildings of the abandoned buildings of East Bengal and Assam and the buildings of Dhaka College (present Curzon Hall).

On about an acre of land in the most elite and beautified Ramna area of ​​Dhaka. This day of establishment is celebrated as “Dhaka University Day” every year.

Oxford vs Dhaka University

It started as a residential university with three faculties and 12 departments. The students of Dhaka College and Jagannath College (now Jagannath University) started their journey with the degree students. Not only students. Teachers and Library books and other materials also helped establish the University of Dhaka. Thanks to this co-operation, the two halls of this university were renamed Dhaka Hall (now Dr. Muhammad Shahidullah Hall) and Jagannath Hall.

Faculty of Arts, Science and Law included Sanskrit and Bengali, English, Education, History, Arabic, Islamic Studies, Persian and Urdu, Philosophy, Economics and Politics, Physics, Chemistry, Mathematics and Law.

In the first academic year, the total number of students in different departments was 5 and the number of teachers was only 5. The first student of this university is Lila Nag (Department of English; MA-122).

Dhaka University Job Circular 2020

The eminent educators involved in the founding of the University were: Harprasad Shastri, F.C. Turner, Muhammad Shahidullah, G.H. Langley, Haridas Bhattacharya, WA Jenkins, Ramesh Chandra Majumder, Sir A. F. Rahman, Satyendranath Bose, Naresh Chandra Sengupta, Gyan Chandra Ghosh. Under the new initiative, the activities of Dhaka University began. At that time, eight colleges of East Bengal. Became affiliated to this university. Three new faculties, Three new departments and Five institutes were established in 5 to 7 time period.

বেসরকারি চাকুরীর খবর পেতে এখানে ভিজিট করুন।

বিভিন্ন এনজিওর চাকুরীর খবর পেতে ভিজিট করুন।